প্রেমিকার মরদেহের উপর ছিল প্রেমিকের লাশ

গাজীপুর থেকে মোফাজ্জল হোসেন »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

গাজীপুরের কালীগঞ্জে একটি কক্ষ থেকে দুই তরুণ-তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনিসুর রহমান এ তথ্য জানান।

এর আগে বুধবার উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের সাতানীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার বক্তারপুর ইউনিয়নের সাতানীপাড়া গ্রামের মৃত সমর গমেজের ছেলে হৃদয় গমেজ (২৫) ও একই উপজেলার তুমলিয়া ইউনিয়নের বান্দাখোলা গ্রামের স্বপন রোজারিওর মেয়ে ইভানা রোজারিও (২২)।

জানা যায়, বুধবার সকালে প্রেমিক হৃদয় গমেজের মা স্থানীয় ভূমি রেজিষ্ট্রি অফিসে জমি রেজিষ্ট্রি করতে যান। বাড়ি ফাঁকা পেয়ে ডেকে আনেন প্রেমিকা ইভানা রোজারিওকে। রাত ৭টার দিকে প্রেমিক হৃদয়ের মা বাড়ি ফিরে দেখেন ঘরের দরজা বন্ধ পান। পরে জানালা দিয়ে দেখেন ঘরের মেঝেতে দু’জনের মরদেহ পড়ে আছে।

হৃদয়ের মায়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই প্রেমিক-প্রেমিকার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপতালে প্রেরণ করে।

স্থানীয়রা জানান, গত চার-পাঁচ বছর ধরে হৃদয় ও ইভানার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যা দুই পরিবারই জানতো। প্রেমিক হৃদয় গমেজ ব্র্যাকে চাকরি করতেন এবং প্রেমিকা ইভানা রোজারিও ঢাকার উত্তরার একটি নার্সিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী ছিল।

ওসি জানান, সকালে হৃদয়ের মা বাড়ি থেকে বেরিয়ে গেলে কোন সময় প্রেমিকা ইভানাকে বাড়ি ডেকে আনে। পরে সকাল থেকে সন্ধ্যা এর কোন এক সময় প্রেমিকাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা শেষে হৃদয় নিজেই নিজের পেটে ছুরি দিয়ে আঘাত করে আত্মহত্যা করেন।

তিনি জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে দেয়াল টপকে ঘরে প্রবেশ করে দু’জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রেমিক হৃদয়ে পেটে ছুরিকাঘাত ও হাতে ছুরি ছিল এবং প্রেমিকা ইভানার গলায় ছুরিকাঘাত ছিল। ঘরের মেঝেতে প্রেমিকার উপর প্রেমিকের মরদেহ পরে ছিল। দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যা পরিবার মেনে নেয়নি বলে হতে পারে সেই অভিমানে দু’জনে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

ওসি আরও জানান, এ ব্যাপারে একটি হত্যা ও একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। বাকিটা তদন্ত প্রতিবেদন হাতে পাওয়ার পর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »