চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী বাছাইয়ে অনিয়ম, তৃণমূলের ভোট বর্জন

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আ’লীগের চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী বাছাইয়ে অনিয়মের অভিযোগ এনে সমর্থন ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠান বর্জন করেছে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কায়েতপাড়া ইউনিয়নের নাওড়া এলাকায় চেয়ারম্যানের অস্থায়ী কার্যালয়ে ইউনিয়ন আ’লীগ আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীর (বীর প্রতিক) এর বিরুদ্ধে তারা এই অনিয়মের অভিযোগ আনেন।

প্রতিবাদ সভায় কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সামসুল আলম জানান, দ্বিতীয় দফায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রূপগঞ্জের পাঁচটি ইউনিয়ন তফসিলভুক্ত হয়। এর মধ্যে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদও রয়েছে। চলতি নির্বাচনে কায়েতপাড়া ইউনিয়নের সকল কার্যনির্বাহী সদস্য ও ওয়ার্ড সদস্যগণ বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. রফিকুল ইসলামের ভাই মিজানুর রহমানকে সমর্থন করেন।

তিনি জানান, এদিকে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের লিখিত আপত্তি থাকার পরও রূপগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও স্থানীয় এমপি গাজী গোলাম দস্তগীর (বীর প্রতিক) তার পছন্দের প্রার্থী জাহেদ আলীকে তৃণমূলের সমর্থনে জেতাতে মঙ্গলবার বিকেলে তার বাড়িতে সমর্থন ভোটের আয়োজন করেন। তিনি নিয়ম বহির্ভূত ভাবে কায়েতপাড়া ৯ নং ওয়ার্ডের অর্ন্তগত চনপাড়া পুনর্বাসন কেন্দ্রকে সাংগঠনিক ইউনিয়ন দাবি করে সেখানে রাতারাতি ১৮ জন ভোটার সৃষ্টি করে। যা চরম হাস্যকর ও পক্ষপাতমূলক বলে দাবি সামসুল আলমের। এসব কারণে তারা পুরো ইউনিয়ন আ’লীগ মন্ত্রী গাজীর আয়োজিত তৃনমূল ভোটের অনুষ্ঠান বর্জন করেন।

কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল আউয়াল জানান, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের ৬৪ জন কার্যকরী সদস্যের মধ্য ১৫ জন মারা গেছেন। প্রবাসে রয়েছেন একজন। দু’জন দলত্যাগ করেছেন। নয় জন মারাত্মক অসুস্থ ও বিছানায় শয্যাশায়ী। বর্তমানে ভোটার রয়েছেন ৩৭ জন। এর মধ্যে আমরা এখানে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত রয়েছি ৩০ জন। যারা সবাই মিজানুর রহমানকে সমর্থন করেছি। তাহলে মন্ত্রী গাজী কিভাবে জাহেদ আলীকে গায়েবী ভোটে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিতে চেষ্টা চালাচ্ছেন।

প্রতিবাদ সভা শেষে তারা সেখানে মন্ত্রীর এই প্রহসনমূলক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »