টঙ্গীতে শ্বাসরোধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ

গাজীপুর থেকে মোফাজ্জল হোসেন »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

টঙ্গীর বড় দেওরা এলাকায় শ্বাসরোধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। বুধবার সকালে ওই এলাকার দুটি বহুতল ভবনের মাঝে শাবনূর (২৫) নামে গৃহবধূর মরদেহ পাওয়া যায়। তার বাড়ি নওগাঁ সদর থানার চারিপাড়া এলাকায়।

অভিযুক্ত স্বামী আব্দুস ছাত্তার (৩৫) ময়মনসিংহের কতোয়ালী থানার ছোয়ানিয়া এলাকার মৃত রজব আলীর ছেলে। অপর অভিযুক্ত একই এলাকার মৃত আইনুদ্দীনের ছেলে দুলাল উদ্দিন (৩৪)। ভিকটিম শাবনূর অভিযুক্ত আব্দুস ছাত্তারের দ্বিতীয় স্ত্রী।

টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম জানান, স্বামী আব্দুস ছাত্তার স্ত্রী শাবনূরকে নিয়ে টঙ্গীর বড় দেওরা এলাকার রেজোয়ান কবিরের বহুতল ভবনের ৫ম তলায় মেস ভাড়া করে থাকতেন। তিনি স্থানীয় এআরএস কোম্পানির ওয়াশিং শ্রমিক। গত ৩ সেপ্টেম্বর বাইরে থেকে তার কক্ষ বন্ধ দেখে স্বামী আব্দুস ছাত্তারকে পাশের ভবনের ভাড়াটিয়ারা ফোন করে। এতে আব্দুস ছাত্তার তার স্ত্রী ভেতরে আছে এবং কোনো সমস্যা নেই বলে জানায়।

আফগানিস্তানের নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মাথার দাম ৫০ লাখ ডলার

পুলিশি অনুসন্ধানে জানা গেছে, স্বামী আব্দুস ছাত্তার সহযোগী দুলালকে নিয়ে স্ত্রী শাবনূরকে গলায় কাপড় পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে দুই ভবনের মাঝে ফেলে রাখে। পরে স্থানীয় লোকজন বুধবার ওই গৃহবধূর মরদেহ দেখে পুলিশে খবর পাঠায়। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের স্বজনদের খবর পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রক্রিয়া চলছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »