শিবগঞ্জে যৌন হয়রানির অভিযোগে ভণ্ড তান্ত্রিক গ্রেফতার

শিবগঞ্জ (বগুড়া) থেকে কামরুল হাসান »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বগুড়ার শিবগঞ্জে তান্ত্রিক পরিচয় দিয়ে অর্থ আত্মসাৎসহ নিঃসন্তান নারীদের সঙ্গে যৌন হয়রানির অভিযোগে এক ভণ্ড তান্ত্রিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, বিহার ইউনিনের বিহার ফকির পাড়া গ্রামের আহাজার আলী ফকিরের ছেলে রুম্মান হাসান (২৪) নিজেকে তান্ত্রিক পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছেন। তিনি আধ্যাতিক জগতের জ্ঞান লাভ করেছেন বলে নিজেকে জাহির করেন। যাদু বিদ্যার মাধ্যমে কথিত তান্ত্রিক মানুষের সকল রোগ ভাল করার কথা জানান।

তার কাছে চিকিৎসা নেওয়া এমন কিছু রোগীর সাথে কথা বলে জানা যায়, এখানে যারা চিকিৎসা নিতে আসেন তারা অধিকাংশ নারী এবং নিঃসন্তান ও প্রবাসীর স্ত্রী। সুযোগ বুঝে কথিত তান্ত্রিক ঔষধের পরিবর্তে যৌন উত্তেজক তরল দ্রব্য খাইয়ে দিয়ে, জ্বিন হাজিরের নামে ঘরের বাতি নিভিয়ে দিয়ে অসহায় নারীকে যৌন হয়রানি করে থাকেন। শুধু তাই নয় এই কথিত তান্ত্রিক ধনাঢ্য রোগী পেলে চিকিৎসার নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে ননয়।

বিষয়টি শিবগঞ্জ থানা পুলিশ জানতে পেরে শনিবার সন্ধ্যায় তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে যৌন উত্তেজক ঔষুধ, যাদুর ঝুলি ও মানুষের মাথার খুলিসহ তাবিজ কবজ উদ্ধার করে। এ বিষয়ে তান্ত্রিকের প্রতারণার শিকার চককানু গ্রামের জনৈক স্বাধীন আলীকে প্রতারণার মাধ্যমে অন্য মহিলার সাথে অবৈধ সম্পর্ক আছে এমন গুজব ছড়িয়ে অর্থ আদায়ের চেষ্টার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই তান্ত্রিকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম বলেন, কথিত তান্ত্রিক এলাকার সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছে ও মহিলাদের সঙ্গে যৌন হয়রানিসহ বিভিন্ন অপরাধ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »