আজও বাড়ি ফিরছেন অনেকেই

অনলাইন ডেস্ক »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আজ পবিত্র ঈদ-উল-আজহা। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে অনেকেই গ্রামের বাড়িতে চলে গেছেন। আবার অনেকে আজ যাচ্ছেন।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর গাবতলীতে দেখা যায়, গ্রামের বাড়ি যেতে বাসস্ট্যান্ডে আসছেন অনেক যাত্রী। তবে গত কয়েকদিনের ন্যায় ভিড় নেই।

যাত্রীরা জানান, ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও নানা কারণে ঈদের আগে বাড়ি ফিরতে পারেননি। পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীদের এক নজর দেখতে ঈদের দিনে বাসে উঠার চেষ্টা করছেন।

গাবতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে রংপুর, জলঢাকা, ঠাকুরগাঁওয়ের উদ্দেশে ছেড়ে যায় তাজ পরিবহন। সন্ধ্যায় তাদের দুটি বাস রয়েছে।

এর আগে সকাল থেকে অর্ধেকের বেশি টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে বলে জানান তাজ পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার মোহাম্মদ মাসুম।

তিনি বলেন, ‘অনেক ব্যবসায়ী-চাকরিজীবী আছেন ঈদের দিন বাড়ি যান। অনেকে কোরবানি দিতে পারেন না। ঈদের দিন প্রতিবেশীর দেয়া মাংস নিয়ে বাড়ি যান।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত কয়েকদিনে এবার সড়কে প্রচুর চাপ ছিল। ফলে ১৯ তারিখ রাতে ছেড়ে আসা অনেক গাড়ি আজকে ঢাকা এসে পৌছায়। এছাড়া চাপ এড়াতেও অনেকে ঈদের দিন বাড়িতে যান।’

বাসস্ট্যান্ডে কথা হয় নেত্রকোণার খালিয়াজুড়ি উপজেলার জামাল হোসেনের সঙ্গে। তিনি নিউ মার্কেটের একটি দোকানে চাকরি করেন।

তিনি জানান, ঈদের আগের দিন রাত পর্যন্ত দোকানে বেচাকেনা থাকায় আগে বাড়িতে যেতে পারেননি।

জামাল হোসেন বলেন, ‘ঈদের সময় ভাড়া বেশি থাকে। তবে ঈদের দিন যানজট কম থাকে। অন্য দিনের চেয়ে আজকে আরামে এবং কম সময়ে বাড়ি যেতে পারব।’

কয়েকজন যাত্রী অভিযোগ করেন, স্বাস্থ্যবিধি না মেনে দুই সিটেই যাত্রী নিয়ে যাচ্ছে মানিকগঞ্জের সেলফি পরিবহন। তারা ভাড়াও নিচ্ছে দ্বিগুণ।

এ বিষয়ে বাসের হেলপার কালাম বলেন, ‘আমরা মালিকের গাড়ি চালাই। আমাদের যেভাবে নিতে বলছে, সেভাবেই নিচ্ছি। অনেক সময় ট্রাফিক ধরে মামলা দিয়ে দিচ্ছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »