বিরামপুরের ১৫ গ্রামে ঈদ উদযাপন

দিনাজপুর প্রতিনিধি »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে দিনাজপুরের বিরামপুরের দুই ইউনিয়নের প্রায় ১৫টি গ্রামের শতাধিক মুসল্লি ঈদের নামাজ আদায় করেছেন।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার জোতবানি ইউনিয়নের খয়েরবাড়ি-মির্জাপুর গ্রামের মসজিদে ও একই সময় আয়ড়া বাজার মোড় জামে মসজিদে দুটি জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।

দুই জামাতে ১৫ গ্রামের প্রায় শতাধিক মুসল্লি নামাজ আদায় করেন। খয়ের বাড়ি মির্জাপুরে ইমামতি করেন মো.দেলোয়ার হোসেন কাজি এবং অন্যটিতে মাওলানা আল-আমিন। দুই জামায়াতে পুরুষ মুসল্লির পাশাপাশি নারী মুসল্লিও অংশগ্রহণ করেন।

সরেজমিনে মঙ্গলবার সকালে উপজেলার খয়েরবাড়ি-মির্জাপুর গ্রামের গিয়ে দেখা যায়, সময় হওয়ার আগে দূর দূরান্তের গ্রামগুলো থেকে কেউও ভ্যানে আবার কেউ সাইকেল আবার কেউও মোটরসাইকেলযোগে একত্রিত হতে থাকে। বিশৃঙ্খলা এড়াতে বিরামপুর থানা পুলিশের পক্ষ থেকেও করা হয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা।

নির্ধারিত সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ওই এলাকার মসজিদে মো. দোলোয়ার হোসেন কাজির ইমামতিতে নামাজ শুরু হয়। নামাজে পুরুষ মুসল্লির পাশাপাশি নারী মুসল্লির উপস্থিত ছিলেন।
নামাজ শেষে উভয় স্থানে মুসল্লিগণ গরু ও ছাগল কোরবানি করেন।

একদিন আগে ঈদ উদযাপনের বিষয়ে জানতে চাইলে ইমাম মো. দোলোয়ার হোসেন কাজি বলেন, ‘সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের সময়ের পার্থক্য মাত্র তিন ঘন্টা। এই তিন ঘন্টার ব্যবধানে দিনের পরিবর্তন হয় না। সে কারণেই একই দিন নামাজ আদায় করা হয়।

তিনি বলেন, ‘আবার হযরত মুহাম্মদ (সা.) জম্মগ্রহণ করে ১২ রবিউল আওয়াল (সোমবার) কিন্তু যদি দিন ধরা হয় তাহলে আমাদের দেশে সেই দিন হয় মঙ্গলবার। আবার রমজানে ২৭ তারিখ আমরা ‘লাইলাতুল কদর’ রাতে ইবাদতের মাধ্যমে আল্লাহকে খুঁজি। কিন্তু দিন হিসেবে আমরা একদিন পর সেই রাতকে খুঁজতেছি। এমন বিভিন্ন চিন্তা ও হাদিসি ব্যাখ্যার কারণে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উযদাপন করছি।’

ইমাম দোলোয়ার হোসেন বলেন, ‘১৯৯৭ সাল থেকে এভাবে নামাজ আদায়ের পরিকল্পনা থাকলেও ২০১৩ সাল থেকে আমার সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে নামাজ আদায় করছি। তবে গতবারের চেয়ে এবার মুসল্লির সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।’

বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বলেন, ‘উপজেলায় দুটি স্থানে বেশ কয়েকটি গ্রামের মুসল্লিরা একত্রিত হয়ে নামাজ আদায় করেন। জামাতে বিশৃঙ্খলা এড়াতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »