মা-বাবার পর চলে গেল শিশু আয়েশাও

অনলাইন ডেস্ক »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে অটোরিকশার ‘ব্যাটারি বিস্ফোরণে’ দগ্ধ মা-বার মৃত্যুর তিন দিন পর তাদের মেয়ে আয়েশাও না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন।

দগ্ধ হওয়ার পাঁচ দিনের মাথায় মঙ্গলবার দিবাগত রাত নয়টার দিকে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শিশুটি। বিস্ফোরণেও ওই ঘটনার এর আগে আয়েশার বাবা-মা মারা যান। এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে আয়েশার আরেক বোন মায়শা।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ বক্সের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার রাতে আয়েশার মৃত্যু হয়েছে। তার আরেক বোন মায়শা চিকিৎসাধীন। তার অবস্থাও সংকটাপন্ন।

রপ্তানি বাণিজ্য সুরক্ষায় বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা

গত ৯ জুলাই ভোরে কামরাঙ্গীরচরের আহসানবাগ এলাকায় অটোরিকশার চার্জার বিস্ফোরণে দগ্ধ হন একই পরিবারের পাঁচজন। তারা হলেন আব্দুল মতিন, তার স্ত্রী ইয়াসমিন, দুই মেয়ে আয়শা ও মায়শা এবং ময়নার ভাগ্নে আবুল খায়ের রায়হান। দ্রুত তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন মারা যার আব্দুল মতিন ও তার স্ত্রী ইয়াসমিন। আগুনে মায়শার শরীরের ৪২ এবং রায়হানের শরীরের ১৮ শতাংশ দগ্ধ হয়। তাদের মধ্যে মায়শার অবস্থা ভালো না বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »