মৌলভীবাজারে প্রবাসীদের উপর হামলার অভিযোগ

মৌলভীবাজার থেকে রুমান আহমেদ »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মৌলভীবাজার সদর উপজেলার সাবেক ৮নং কনকপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মৃত মোঃ ফজলুর রহমান গণির পরিবারকে পূর্ব শত্রুতার কারণে লন্ডন প্রবাসী মহসিন মিয়া ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী প্রতিনিয়ত সামাজিক হেনস্তা ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে। অভিযোগকারী দেশেরকণ্ঠ প্রতিনিধিকে বলেন- ঈদের ছুটিতে মরহুম ফজলুর রহমানের প্রবাসী পুত্রদ্বয় ও তাদের পরিবার দেশে আসার পর থেকেই পরিবারিক রাস্তার গাইডওয়াল নির্মাণে বাধা, চাঁদা দাবীসহ নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করে আসছিল মহসিন এর পালিত চিহ্নিত সন্ত্রাসী, মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ী এলাকার ত্রাস শামীম আহমদ ও কওছর মিয়া।

গত ঈদুল ফিতরের দিন (১৪ মে) শুক্রবার বিকাল প্রায় সাড়ে তিনটার দিকে মরহুম ফজলুর রহমানের প্রবাসী পুত্রদ্বয় ও তাদের পরিবার গ্রামের বাড়ী ভাদগাঁও এর আফছার মনজিল হতে শহরের পথে প্রাইভেট কার এ রওনা দিলে, মহসিন মিয়ার নির্দেশে তার ভাই ও ভাতিজা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শামীম ও তার সহযোগী কওছর, সোফান, আনছার মিলে আফছার মনজিলের প্রবেশ পথে ওৎ পেতে থাকে। প্রাইভেট কারটি প্রধান ফটকের সামনে আসা মাত্রই তারা হামলা চালায়। হামলায় গাড়ীর ভেতরে থাকা মাহফুজুর রহমান (যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী), তৌহিদুর রহমান দিলু ও তাদের মা শাহিদা বেগম মারাত্মকভাবে আহত হন। আহতদের চিৎকার শুনে বাড়ীর ভিতর থেকে মতিউর রহমান (যুক্তরাজ্য প্রবাসী) ও এলাকাবাসী এসে তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন ও সন্ত্রাসীদের প্রতিরোধ করেন। এলাকাবাসীর প্রতিরোধের মুখে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে সহায়তা চাইলে জরুরী ভিত্তিতে সদর মডেল থানা হতে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় ও আহতদের চিকিৎসা সেবা ও আইনি সহায়তা প্রদান করে। পরেরদিন তৌহিদুর রহমান দিলু বাদী হয়ে মৌলভীবাজার সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (মামলা নং ১৫, তারিখ ১৫/০৫/২১)। আসামীরা বর্তমানে পলাতক থাকলেও মহসিন মিয়া প্রতিনিয়ত প্রাণনাশের হুমকিসহ মামলা তুলে নেয়ার জন্যে চাপ দিয়ে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »