বিদেশিদের নাগরিকত্ব দিতে চায় আমিরাত

বিশেষ প্রতিবেদন »

সংবাদটি শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিদেশি নাগরিকদের জন্য সুখবর দিল মধ্যপ্রাচ্যের দেশ আরব আমিরাত। শনিবার নতুন এক ঘোষণায় জানানো হয়েছে যে, নির্দিষ্ট কিছু ক্ষেত্রে আমিরাতে অবস্থানরত বিদেশিদের নাগরিকত্ব প্রদানের পথ খুলে দেয়া হচ্ছে।

করোনা মহামারীর এই সময়ে উপসাগরীয় কোন দেশে এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ বলা যায়।

আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মাকতুম বলেন, নতুন এই সংশোধনীর আওতায় বিনিয়োগকারী, মেধাবী, বিজ্ঞানী, চিকিৎসক, প্রকৌশলী, চিত্রশিল্পী, লেখক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা নাগরিকত্বের সুযোগ পাবেন।

শেখ মোহাম্মদ বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট মানদণ্ডের আওতায় কারা নাগরিকত্ব পাবেন সেটা চূড়ান্ত করবে আরব আমিরাতের মন্ত্রিসভা, স্থানীয় আদালত ও নির্বাহী পরিষদ। যারা আরব আমিরাতের পাসপোর্ট গ্রহণ করবে তারা নিজ নিজ দেশের নাগরিকত্বও বজায় রাখতে পারবে বলে জানানো হয়েছে।

আরব আমিরাত সরকার জানিয়েছে, দেশটিতে অবস্থানরত মেধাবী ও দক্ষ বিদেশিদের নাগরিকত্ব প্রদানের লক্ষ্যেই নাগরিকত্ব আইনের সংশোধন করা হয়েছে। এর ফলে আমিরাতে আরও বেশি মেধাবী ও দক্ষ লোকজনকে আকৃষ্ট করা সম্ভব হবে।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষ ও মেধাবী লোকজনের সংখ্যা বেড়ে গেলে তা আমিরাতের জন্য সুফল বয়ে আনবে। আরব আমিরাতে নাগরিকত্ব পাওয়া বিদেশি নাগরিকের সংখ্যা খুব বেশি নয়। দেশটিতে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রচুর বিদেশি শ্রমিক কাজ করছে। এর মধ্যে অধিকাংশই দক্ষিণ এশিয়ার। এদের মধ্যে অনেকেই দ্বিতীয় বা তৃতীয় প্রজন্মের বাসিন্দা।

সম্পদের ওপর করের মাত্রা কম থাকায় এবং বিলাসবহুল বিভিন্ন মেগা প্রজেক্ট ও পর্যটন আকর্ষণের জন্য আমিরাতে সাম্প্রতিক সময়ে ধনকুবের প্রবাসীদের সংখ্যা বাড়ছেই। মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশই যখন বিদেশি শ্রমিকদের সংখ্যা কমিয়ে আনার পরিকল্পনা করছে তখন ভিন্ন পথেই হাঁটছে আমিরাত। তেল সমৃদ্ধ এই উপসাগরীয় দেশটি দীর্ঘদিন ধরেই তাদের নাগরিকদের উন্নত জীবনযাত্রার মান নিশ্চিত করেছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »