সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

মুন্সিগঞ্জ থেকে মিনহাজুর রহমান »

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মুন্সিগঞ্জের স্থানীয় দৈনিক রজত রেখা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে পত্রিকাটির সম্পাদক সহ জেলায় কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীরা।

রোববার (২ মে) দুপুর সাড়ে ১২ মুন্সিগঞ্জ প্রেসক্লাবে শফিউদ্দিন মিলানায়তে এই সংবাদ সম্মেল অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ খোকা।

বিগত সময় এই চরাঞ্চলের হত্যা মামলার কোন বিচার আজ পর্যন্ত পায়নি কোন পরিবার। কারণ মামলায় মূল আসামীদের আড়াল করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মাদক, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজীতে যারা লিপ্ত তাদের নাম মামলায় না এনে একজন সাংবাদিককে কেন মামলায় জড়ানো হলো পুলিশ প্রশাসনের কাছে সাংবাদিকদের প্রশ্ন করা উচিত বলে মনে করেন সম্পাদক শাহীন মোহাম্মদ আমান উল্লাহ।

সংবাদ সম্মেলনে সম্পাদক আরো বলেন, চরাঞ্চলের দুইটি গ্রুপ সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে আসছে। একটি গ্রুপে লিড দেয় সামসুদ্দিন হালদার মামুন অপর গ্রুপে লিড দেয় নজির হালদার। অপর আরেকজন রয়েছেন জেসমিন আরা জুঁই। কে এই জুঁই? পুলিশ প্রশাসন এদের বিরুদ্ধে কেন মামলা করছে না? এদেরকে কেন আইনের আওতায় না এনে একটি পত্রিকার সংবাদকর্মীকে টার্গেট করলো? যারা কোল্ড স্টোরেজে, মাঠে, ঘাটে, ট্রলারে, দোকানে চাঁদা তোলে তাদের নাম কেন এই মামলায় নেই?

এ সময় সংবাদ সম্মেলণে অতিবিলম্বে ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবী জানিয়ে ভুক্তভোগীরা সহ উপস্থিত সাংবাদিকরা বক্তব্য রাখেন।

তিনি আরো বলেন, ভুক্তভোগী (নির্বাহী সম্পাদক) মাহমুদুল হাসান সাদী একজন মেধাবী ও তরুণ সাংবাদিক বিভিন্ন সময় নানা অপরাধ মূলক সংবাদ প্রকাশের জের ধরে ইর্ষানিত হয়ে একটি কুচক্রি মহল তার সুনাম খুন্ন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ভাবে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তারই ধারাবাহীকতায় তার বিরুদ্ধে হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাই অতিদ্রুত প্রশাসনের সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান তারা।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি আরিফ উল ইসলাম, পত্রিকাটির সম্পাদক এ্যাডভোকেট শাহীন মোহাম্মদ আমানউল্লাহ, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ খোকা, সংস্কৃতিক কর্মী জাহাঙ্গীর হোসেন ঢালী। এ সময় জেলায় কর্মরত সকল প্রিন্ট ও ইলেকটনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মুন্সীগঞ্জ জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিকও দাবী করেন মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে মামলা করে চরের আধিপত্য বিস্তার রোধ করতে হবে। ককটেল বিষ্ফোরন, গুলি, হামলা, বাড়িঘর ভাংচুর, একপক্ষকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়া আবার আরেক পক্ষকে বাড়িতে বহাল করা এসকল কিছুই বন্ধ হয়ে যাবে যদি নেপথ্যের নাটক নির্মাতাদের আইনের আওতায় আনেন পুলিশ। সকল সংবাদের শিরোনামে ছিলো সামসুদ্দিন মামুন, জেসিমিন আরা জুঁই, এবং নজির হালদার। তবে কেন রজত রেখা পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদককে এই মামলার আসামী করা হলো? বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনকে গভীরভাবে তদন্ত করে হাসান সাদীর বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রত্যাহার করার দাবী করেন উপস্থিত সকল সাংবাদিক।

উল্লেখ্য: গত ২৩ এপ্রিল সদর উপজেলার চরকেওয়ার ইউনিয়ানের ছোট মোল্লাকান্দি ও খাসকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে একটি সংর্ঘষ ঘটনা ঘটে। সেই সংর্ঘষের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ এনে তাকে আসামী করে তার বিরুুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »