মির্জাগঞ্জে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ১১ জনের মৃত্যু

মির্জাগঞ্জ থেকে সুজন সিকদার »

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে ডায়রিয়ার প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী এক কিশোরীসহ ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্তের কয়েক ঘন্টার মধ্যেই তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। তবে এদের মধ্যে কেউ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন ছিলেন না বলে জানা যায়।

মৃত ব্যক্তিরা হলেন, মাধবখালী ইউনিয়নের কাঠাঁলতলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ও সমাদ্দারকাঠী গ্রামের রাকিব খন্দকারের মেয়ে সাহারা সানফুল (১৫), উত্তর মাধবখালী গ্রামের মৃত মহবত আলী হাওলাদারের ছেলে মন্নাফ হাওলাদার (৫০), মাধবখালী গ্রামের মৃত্যু বন্দে আলী সিকদারের ছেলে মোঃ নুর মোহাম্মদ সিকদার (৮০), উত্তর মাধবখালী গ্রামের দেনছে আলী সিকদারের স্ত্রী কহিনুর বেগম (৫৫), মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের মৃত ফরমান সিকদারের ছেলে আলীম উদ্দিন সিকদার(৭৫), একই গ্রামের মৃত গনি হাওলাদারের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৭০), মৃত করিম নেগাবানের মেয়ে ফরিদা বেগম(৫০), ভাজনা কদমতলা গ্রামের মৃত আজাহার হাওলাদারের ছেলে সোবাহান হাওলাদার(৫৬) পিপড়াখালি গ্রামের ইউনুস সরকারের স্ত্রী কদভানু বেগম(৭০), ঘটকের আন্দুয়া গ্রামের রাখাল চন্দ্র মালির স্ত্রী বিরেন মালী(৫৫) ও মজিদবাড়িয়া ইউনিয়নের তারাবুনিয়া গ্রামের মৃত একরাম সিকদারের ছেলে আলেক সিকদার (৫০)। সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকাল ০৩ টা পর্যন্ত স্থানীয় সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করা গেছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৫০ শয্যার উপজেলা হাসপাতালে বেড সংকট দেখা দিয়েছে। বাধ্য হয়ে রোগীদের বারান্দার মেঝেতে শুয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করতে বাধ্য হচ্ছেন। হাসপাতালের বারান্দায়সহ টয়লেটেও নোংরা অবস্থায় দেখা গেছে।
প্রতিদিনই আসছে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগী। অপরদিকে হাসপাতালে ও বাইরে কলেরা স্যালাইনের মারাত্মক সংকট দেখা দিয়েছে। জরুরি প্রয়োজনেও স্যালাইন পাওয়া যাচ্ছে না এমন অভিযোগ রোগীর স্বজনদের।

মির্জাগঞ্জ উপজেলা হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে ৯৩ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছে এবং ছাড়পত্র পেয়েছেন ৭২ জন। এ নিয়ে গত ৭ দিন উপজেলায় ডায়রিয়ার আক্রান্তের সংখ্যা ৪৪২ জনে দাড়িয়েছে। বর্তমানে হাসপাতালে ২৬১ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে ।

মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ দিলরুবা ইয়াসমিন লিজা বলেন, হাসপাতাল ভর্তি কোন ডায়রিয়ার রোগী এখন পর্যন্ত মারা যায়নি। তবে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কর্মীদের মাধ্যমে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে কয়েকজন রোগীর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তিনি আরো জানান, বিগত বছরগুলোতে কখনো এতো পরিমান ডায়রিয়া রোগী হাসপাতালে আসে নাই। রোগীর সংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালে স্যালাইন সংকট দেখা দিয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে কিছু স্যালাইন সংগ্রহ করা হয়েছে ও চাহিদা অনুযায়ী সংগ্রহ করার চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »