বাগেরহাটে অধিকাংশেই মানছে না স্বাস্থ্যবিধি

চিতলমারী (বাগেরহাট) থেকে অলোক »

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অধিকাংশের মুখে নেই মাস্ক, নেই দুরত্বের বালাই। স্বাস্থবিধির তোয়ক্কা না করে চলাঢেরা করছে প্রায়সকলে। এমন বিশৃঙ্খল পরিবেশ বাগেরহাট জেলার প্রতিটা উপজেলার, যা হাটবাজার থেকে শুরু করে নির্বাচনের আড্ডায়ও রয়ছে।

২য় পর্যায়ে করনার ঢেউয়ে বাদ পড়ছে না দেশের কোন জেলা। তবুও বাগেরহাটের মানুষের মধ্যে দেখা যাচ্ছে না সচেতনাতা। বিশেষ করে খেটে খাওয়া মানুষের মাস্ক পড়তে অনিহা বেশী।

দেখাযায়, অফিস-আদালতের অনেকেই সামাজিক দূরত্ব মানছে না, করছেনা মাস্কের ব্যবহার।

এগিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিদিন মাস্ক পরিধানের জন্য উৎসাহিত করে চলছে।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক খোন্দকার মোঃরিজাউল করিম বলেন, আমরা জনগণকে করনার ভয়াবহতার কথা বলছি এবং সচেতন করছি। প্রত্যেকদিন চারটি করে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে জরিমানাও করছি। তবুও জনগন সচেতন হচ্ছেনা। তবে এ প্রকৃয়া অব্যাহত থাকবে।

কচুয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মাস্ক বিতরণ করে সচেতনতা বৃদ্ধির কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া জেলার প্রত্যেক উপজেলার থানা পুলিশ প্রশাসন অনুরুপ কাজ করে যাচ্ছে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »