নরসিংদী প্রেস ক্লাবের সংস্কার ও গ্রন্থাগারের উদ্বোধন

নরসিংদী থেকে আলাউদ্দিন »

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নরসিংদী প্রেস ক্লাবের সংস্কার ও নবনির্মিত গ্রন্থাগার ও আধুনিকায়নকৃত সম্মেলন কক্ষের উদ্বোধন করা হয় । উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী প্রেস ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা নরসিংদী’র জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন।

শনিবার রাতে প্রেস ক্লাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রেস ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি মাখন দাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ মাজহারুল পারভেজ মন্টির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে প্রধাণ অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, আমরা মানবীয় মানুষ হবো এবং এক অপরের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবো। সেই লক্ষ্যে আমি কোন অপরাধীকে ঘৃণা করি না, তাঁর অপরাধটাকে ঘৃণা করি এবং অপরাধের কারণটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করি।

এসময় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নরসিংদী সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, নরসিংদী সরকারী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ বিশিষ্ট লেখক ও সাহিত্য গবেষক প্রফেসর গোলাম মোস্তাফা মিয়া, নরসিংদী ইনডিপেন্ডেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ ড. মশিউর রহমান মৃধা এবং নরসিংদী প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সভাপতি বাবু নিবারণ রায়।

সভার শুরুতে মিলাদ ও দো’আ পরিবেশন,পবিত্র কোরান থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা সামসুল আলম এবং পবিত্র গীতা থেকে পাঠ করেন প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সদস্য হলধর দাস।

অনুষ্ঠানের সম্মানিত প্রধান উপদেষ্ঠা প্রধান অতিথি মহোদয় ও বিশেষ অতিথি মহোদয়গণকে প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে বই ও ক্র্যাস্ট উপহার এবং উত্তরীয় পরিধান করিয়ে সম্মানিত করেন প্রেস ক্লাবের সদস্যবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শুরুতে নরসিংদী প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এর দেয়া স্বাগত বক্তব্যে সাংবাদিকদের আবাসনের জন্য জায়গা বরাদ্ধের দাবীর প্রেক্ষিতে প্রধান অতিথি বলেন, সাধারণ সম্পাদকের কথার মায়াজালে আমি আবদ্ধ হয়ে গেছি। সাংবাদিকদের জন্য জায়গা বরাদ্ধ দেয়া কঠিন কাজ। খাস জমি খুঁজে বের করে ভূমি মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের জন্য পাঠানোর পর অনুমোদন দেয়ার সম্ভাবনা কম। আপনাদেরকে খাস জমি হয়তো আমি দিতে পারবো না। তবে প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকদের জন্য ক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দাবীর প্রেক্ষিতে অন্যভাবে আবাসনের ব্যবস্থা করে দেয়ার জন্য আরো আগে থেকেই কাজ শুরু করে দিয়েছি কিন্তু বলতে পারছিলাম না। আজকে বললাম। আশাকরি ব্যবস্থা হয়ে যাবে ইনশাল্লাহ। আমি কিন্তু কোন কিছু চাওয়ার আগেই সমাধান করে থাকি। আপনাদের অডিটরিয়াম আধুনিকায়নের কথা আমি নিজেই চিন্তা করেছিলাম, বলেছিলাম আধুনিক করে দিব, দিয়েছি আমার এলার ফান্ড থেকে নিয়মনীতি রক্ষা করেই। এছাড়া, মাননীয় বিভাগীয় কমিশনার মহোদয় আপনাদের লাইব্রেরির জন্য এক লক্ষ টাকা বরাদ্ধ দিয়েছিল। আমি দেখলাম লাইব্রেরিও আধুনিকায়ন করা দরকার এবং তাও করে দিয়েছি। এলার ফান্ড ছাড়াও লোকাল রিসোর্স থেকে সহায়তা নিতে হয়েছে আপনাদের এসব উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পন্ন করতে।

তিনি বলেন, জেলা প্রশাসকের পদ ক্ষণস্থায়ী। তবে আমাদের কর্মকান্ডের মাধ্যমে সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো জাগ্রত থাকে। সরকারি চাকুরীতে একাধারে ২০ বছর অতিক্রম করে ২১ বছরে অতিক্রম করেছি সফলতার মধ্য দিয়ে। আমার জন্য আপনারা দো’আ করবেন। এ উপলক্ষে তিনি কেক কেটে ২০বছর পূর্তীর আনন্দে সকলকে শরিক করেন।

তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, আমি শান্তিতে বিশ্বাসী। আমি মনে করি কেউ যদি কোন ভুল করে থাকে তো তাকে আমি কীভাবে সংশোধন করে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনতে পারবো সেই চেষ্টা করে থাকি। আপনাদের মধ্যে কেউ কোন ভুল করে থাকলে তাদের সংশোধন করে নেবেন। কয়েক জন সাংবাদিকের নাম উল্লেখ করে তাদের সংবাদ পরিবেশনের প্রশংসা করে বলেন, গণমাধ্যম সরকারের চতুর্থ স্তম্ভ। সুতরাং দেশ গঠনে সংবাদিকদের দায়িত্ব কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আজকের এই ক্ষুদ্র পরিবেশে নয় বড় আকারে আয়োজন করে আপনাদের উদ্দেশ্যে জার্নালিজম সম্পর্কে আমি দিন ব্যাপী আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে কথা বলবো।

প্রেস ক্লাবে প্রকৃত সাংবাদিকদের নতুন সদস্য অন্তর্ভূক্তির ক্ষেত্রে প্রধান উপদেষ্টা বলেন, প্রয়োজন সাপেক্ষে আজকের অনুষ্ঠানে উপস্থিত তিন অধ্যক্ষ স্যার এবং ক্লাবের সিনিয়র সদস্যদের নিয়ে কমিটি করে গঠনতন্ত্র মোতাবেক সদস্য নেয়ার ব্যবস্থা করুন।

ক্লাবের সুসজ্জিত লাইব্রেরীতে আরো বই দেয়া এবং অডিটরিয়ামে ও লাইব্রেরীতে এসি দেয়ার ব্যবস্থা করে দিবেন বলে সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেন প্রেস ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »