তালাবদ্ধ ঘরে ভাড়াটিয়ার শিশুর মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক »

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

খুলনায় ভাড়ার জন্য শিশুসন্তানসহ মাকে তালাবদ্ধ করে রেখেছিলেন বাড়ির মালিক মো. নওশের আলী। এসময় বালতির পানিতে ডুবে ছয় মাস বয়সী শিশুটি মারা যায়। এ ঘটনায় বাড়ির মালিককে অবিলম্বের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে ভাড়াটিয়া পরিষদ।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানান সংগঠনের সভাপতি মো. বাহারানে সুলতান বাহার ও সাধারণ সম্পাদক জান্নাত ফাতেমা।

বিজ্ঞপ্তিতে পরিষদ নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘জাতীয় গণমাধ্যমে আমরা খুলনার হৃদয়বিদারক ঘটনাটি জানতে পেরেছি। গত ডিসেম্বরে কাঠমিস্ত্রি ইমদাদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী তামান্না মাসে চার হাজার টাকা ভাড়ায় খুলনা শহরের হরিণটানা রিয়াবাজার এলাকায় একতলা বাড়ির দুটি কক্ষ ভাড়া নেন।

আরও পড়ুন>>স্ন্যাপচ্যাটে স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ হলেন ট্রাম্প

প্রথম মাসের টাকায় নিজেরা ঘরটি মেরামতের কাজ করেছেন। কিন্তু জানুয়ারি মাসের অগ্রিম ভাড়া দিতে না পারায় ৬ জানুয়ারি থেকে ঘরে শিশু সন্তানসহ তামান্নাকে তালাবদ্ধ করে রাখেন বাড়িওয়ালা নওশের। তালাবদ্ধ থাকা অবস্থায় গত ১১ জানুয়ারি মেয়েকে ঘরে রেখে মা বাড়ির ভিতর দিয়ে ছাদে কাপড় শুকাতে যান। এ সময় শিশুটি খেলতে গিয়ে বালতির পানিতে পড়ে যায়। ঘরে এসে তিনি শিশুটিকে ওই অবস্থা থেকে উদ্ধার করলেও বাইরে থেকে ঘর তালাবদ্ধ থাকায় চিকিৎসকের কাছে নিতে পারেননি। ফলে নিষ্পাপ শিশুটির মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।’

তারা বলেন, ‘এ ঘটনায় সম্পূর্ণভাবে বাড়িওয়ালা নওশের দায়ী। অথচ পুলিশ হত্যা মামলা না নিয়ে অপমৃত্যু মামলা করেছে। ভাড়ার টাকার জন্য ঘর তালাবদ্ধ করে রাখার মতো অমানবিক কাজ যে বাড়িওয়ালা করতে পারে, তাকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে। অন্যথায় ভাড়াটিয়া পরিষধ আন্দোলন গড়ে তুলবে।’

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »