জমজ ৩ কন্যা সন্তানের জননীর দিন কাটে অনাহারে অর্ধাহারে

মিঠাপুকুর (রংপুর) থেকে মো. শামিম রানা »

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রংপুরের মিঠাপুকুরে জমজ ৩ কন্যা সন্তানের জননী ফরিদা বেগম (২৬) ও তার জমজ কন্যা সন্তানদের দিন কাটছে অনাহারে অর্ধাহারে।

জানা গেছে, উপজেলার বড়হযরতপুর ইউনিয়নের বলদী বাতান গ্রামের মেনাজ উদ্দীনের ছেলে জিয়াউর রহমান পেশায় একজন গরু ব্যবসায়ীর (দালাল) সঙ্গে উপজেলার মাহিয়ারপুর গ্রামের মৃত জয়েব উদ্দীনের কন্যা ফরিদা বেগমের প্রায় ৫ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের পরে তাদের দাম্পত্য জীবনে একজন ছেলে সন্তান জন্ম নেয়। ছেলের বয়স বর্তমানে ৪ বছর। ফরিদা পরবর্তীতে গভবর্তী হলে গত শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে জমজ ৩ কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। বর্তমানে জমজ ওই কন্যাসহ মা ফরিদা বেগম রংপুরের জনতা ক্লিনিক চিকিসাধীন রয়েছেন।

তবে মা ও জমজ ৩ কন্যা সম্পূর্ণ সুস্থ্য রয়েছেন বলে জানান কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ফরিদা বেগমের স্বামী পেশায় একজন গরুর দালাল। বিভিন্ন হাট-বাজারে অন্যকে গরু কেনা বেচা করে দিয়ে যা পান তা দিয়েই তার সংসার চলে। মাত্র আড়াই শতাংশ জমিতে টিনের ঘরে বসবাস করেন তিনি। আবাদি কোন জমি নেই।

স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বারদের থেকে ফেয়ার প্রাইজ কার্ড কিংবা ভিজিএফসহ কোন সরকারি কোন সাহায্য সহযোগীতাও পান না।

জিয়াউর রহমান জানান, সরকার কঠোর লকডাউন ঘোষণা করায় বর্তমানে হাট-বাজার না থাকায় আয়-রোজগার বন্ধ প্রায়। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে তাদের দিন কাটে অনাহারে অর্ধাহারে।

ক্যারিয়ার গড়ুন এনআরবিসি ব্যাংকে

উপজেলা কর্মকর্তা মামুন ভূঁইয়া জানান, খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »